MBA নাকি মাস্টার্স কোনটা করা উচিত ?

::: গ্রাজুয়েশন শেষ করার পড় অনেকেই MBA এবং Masters এর মধ্যে কনফিউশনে পড়ে যান । বিশেষ BBA ছাড়া যারা অন্য Background থেকে আসে তাদের অনেকেই এটা নিয়ে দোটানায় ভুগেন।

প্রথমেই আসি Masters কাদের করা উচিত

যারা Technical side এ কাজ করতে করতে Interested, যারা Technical Innovation এ বা Research Based কাজ করে মজা পান তাদের Masters করা উচিত। কারন MBA তে Management, Finance, Marketing তারা উপভোগ করবে না।

আর উপভোগ না করলে যেকোন পড়াই বিভীষিকা হয়ে যায়।

MBA কাদের করা উচিত

অপরদিকে যাদের Ambition চাকরি বা ব্যবসা করা, management e top লেভেলে যাওয়া, কোম্পনীর decision making এ ভুমিকা রাখা তাদের জন্য হল MBA.

আপনি যদি Management, Finance, Marketing উপভোগ করেন, আপনি যেকোন ডিসিপ্লিন থেকে অনার্স করেন না কেন আপনি MBA করতে পারেন।

তবে হ্যাঁ, কেবল MBA করেই যে কোন কোম্পনীতে তর তর করে উপরে উঠে যাবেন এটা ভাবা বোকামি।

MBA থেকে শেখা Lesson যদি আপনি প্রয়োগ করে দেখাতে না পাড়েন তাহলে খুব বেশিদূর আগাতে পারবেন না।

তাই MBA করলেই যে চাকরি আমাকে খুজে নেবে এই ধারনা করে বসে থাকটাও খুব বেশী সমীচীন হবে না।

MBA কোথা থেকে করছেন সেটা অনেক বড় ১টা ফ্যাক্টর ।

১টা ডিগ্রি দরকার তাই যেন তেন জায়গা  থেকে ১টা MBA করে ফেললাম এমনটা হলে ক্যারিয়ারে আকাঙ্খিত সাক্সেস নাও পেতে পারেন ।

তবে এ সময় ডিগ্রির সাথে সাথে প্রায়ক্টিক্যাল নলেজ অর্জন করাটাও খুব জরুরী ।

আপনি ভুরি ভুরি মার্কেটিং থিঊরি মুখস্ত করলেন বাট প্রোডাক্ট সেল করতে পারেন না, কোন লাভ এতে হবে না ।

অনেক সময় আবার দেখা যায়, ভুল সাবজেক্ট চয়েজ করে বসে থাকেন অনেকেই । যেমনঃ আপনি ইন্ট্রোভার্ট, কম কথা বলেন ।

আপনি চুজ করে বসে থাকলেন মার্কেটিং যেটাতে ব্যাসিকালি আপনাকে কথাই বলে যেতে হবে ।

সো ১টা সাবজেক্ট চুজ করার আগে আপনি যা পছন্দ করেন সেটিতে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিন ।

দেখবেন কাজ করতে দিগুণ উৎসাহ পাচ্ছেন ।

শেষ কথা হল, যখন ১টা রাস্তা চয়েজ করবেন তখন যেন আর কোন কনফিউশন না থাকে ।

একবারে আট-ঘাঁট বেধে নেমে পড়ুন । ভুলেও পেছনে তাকাবেন না বা উফফফ, ইসসসস এ ধরণের আফসোস করবেন না ।

 

যারা ৫৭ ইনটেকে স্পেশাল ব্যাচে জয়েন করতে চান তারা এই ডক ফাইলটি ফিল-আপ করুন

যারা আইবিএ / ব্যাংক জবস / ইএমবিএ / বিআইবিএম এর ফ্রি সাজেশন ও টিপস চান তারা আমাদের

অফিসিয়াল ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করতে পারেন । জয়েন করতে এখানে ক্লিক করুন 

About the Author:

Shahriar Ahmed